মাত্র তিন বছর বয়সেই কোরআনে হাফেজ জাহরা

সংগৃহীত মাত্র ৩ বছর বয়সেই কোরআনের হাফেজ হয়েছে আজারবাইজানের ছোট্ট ফুটফুটে এক শিশু। তার নাম জাহরা। এতো অল্প বয়সেই পবিত্র কোরআন শরীফ মুখ...

সংগৃহীত

মাত্র ৩ বছর বয়সেই কোরআনের হাফেজ হয়েছে আজারবাইজানের ছোট্ট ফুটফুটে এক শিশু। তার নাম জাহরা। এতো অল্প বয়সেই পবিত্র কোরআন শরীফ মুখস্থ করে ফেলায় সে হচ্ছে ওই দেশের কনিষ্ঠ হাফেজ।

তার এ ধরনের পারদর্শিতায় ইতিমধ্যে আজারবাইজানসহ বিশ্বজুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।
আজারবাইজানের রাজধানী বাকুতে বসবাস করে জাহরার পরিবার। এতো অল্প বয়সে কোরআনের হাফেজ হওয়ায় জাহরার মা জানান, জাহরা যখন তার গর্ভে তখন তিনি বেশি বেশি কোরআন তেলাওয়াত করতেন। উচ্চস্বরের কুরআনের তেলাওয়াত মনোযোগ সহকারে শুনতাম।
জাহরার জন্মের পর ছড়া কিংবা কবিতার পরিবর্তে তাকে ঘুম পাড়াতে কুরআনের ছোট ছোট সুরাগুলো তেলাওয়াত করতেন বলে জানান জাহরার মা।
জাহরার মা আরও বলেন, জাহরার বয়স যখন ১ বছর তখন থেকেই লক্ষ্য করি, তার তেলাওয়াত করা ছোট ছোট সুরাগুলো তার সঙ্গে তেলাওয়াতের চেষ্টা করছে।
মেয়ের এ আগ্রহ দেখে সে কুরআন তেলাওয়াত বাড়িয়ে দেই। আর এভাবেই ৩ বছর বয়সে কোনো শিক্ষক ছাড়াই আমার কাছ থেকে শুনে শুনে জাহরা পবিত্র কুরআনের ৩৭টি সুরা মুখস্থ করে ফেলে।
জাহরার কুরআন মুখস্থে তার মায়ের অবদানই সবচেয়ে বেশি। কারণ তার জন্মের আগে থেকে মায়ের নিয়মিত কোরআন তেলাওয়াত এবং জন্মের পর ঘুম লাগানোর সময় কোরআনের অবিরাম তেলাওয়াতই জাহরাকে কুরআনের প্রতি আগ্রহী করে তুলেছে।

Related

ধর্ম ও জীবন 7298517062377774536

সর্বশেষ খবর

    এক ক্লিকে বিভাগের খবর

    ফেসবুক


    item