মার্চেই কালবৈশাখী ঝড় হওয়ার সম্ভবনা

ফাল্গুন মাস শেষ হতে এখনো নয় দিন বাকি থাকলেও এরই মধ্যে চলছে বৃষ্টি। এ মাসেই আরও শিলাবৃষ্টি ও বজ্রপাত হতে পারে। যার কারণে এবারের কাল বৈশা...


ফাল্গুন মাস শেষ হতে এখনো নয় দিন বাকি থাকলেও এরই মধ্যে চলছে বৃষ্টি। এ মাসেই আরও শিলাবৃষ্টি ও বজ্রপাত হতে পারে। যার কারণে এবারের কাল বৈশাখী নিয়ে সতর্ক থাকতে বলেছে আবহাওয়া অধিদফতর।
মার্চ মাসে তিন-চার দিন হালকা থেকে মাঝারি এবং মাঝারি থেকে তীব্র মাত্রার কালবৈশাখী হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এর পর এপ্রিলে বঙ্গোপসাগরে এক থেকে দুটি নিম্নচাপ সৃষ্টি এবং পরবর্তী সময় একটি ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কা করা হচ্ছে।


আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, মার্চ মাসে ক্রমান্বয়ে দিনের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাবে। তাপমাত্রা বেড়ে ৩৪ থেকে ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত হতে পারে। একইভাবে এ মাসে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
পতেঙ্গা আবহাওয়া দফতরের কর্তব্যরত আবহাওয়াবিদ শ্রীকান্ত কুমার বসাক জানান, ঢাকা থেকে একটি পূর্বাভাসে মার্চ মাসের শেষের দিকে দিনের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেতে পারে। এ ছাড়া কালবৈশাখীর পূর্বাভাসও দেয়া হয়েছে।


এদিকে চলতি মাসে দেশের উত্তর ও মধ্যাঞ্চলে এক থেকে দুদিন মাঝারি অথবা তীব্র কালবৈশাখী ও দেশের অন্যত্র দুই থেকে তিন দিন হালকা বা মাঝারি কালবৈশাখী হতে পারে।
মঙ্গলবার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে। খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও ঢাকা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দু-এক অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে, সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।


সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা ১-৩ ডিগ্রি হ্রাস এবং রাতের তাপমাত্রা ১-২ ডিগ্রি বৃদ্ধি পেতে পারে। পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশ এলাকা পর্যন্ত বিরাজ করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।
সোমবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল সীতাকুণ্ডে ৩০ দশমিক ৪ ডিগ্রি এবং আজকের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল সাতক্ষীরায় ১৩ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

Related

বাংলাদেশ 3709257213685813258

সর্বশেষ খবর

    এক ক্লিকে বিভাগের খবর

    ফেসবুক


    item